• ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৩ লাখ গাছ লাগিয়ে বিডি ক্লিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন

ডেস্ক
প্রকাশিত জুন ৪, ২০২৩, ০৩:৩১ পূর্বাহ্ণ
৩ লাখ গাছ লাগিয়ে বিডি ক্লিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন
সংবাদটি শেয়ার করুন....

তিন লাখ গাছ লাগিয়ে সংগঠনের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন করেছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডি ক্লিনের সদস্যরা। আজ শনিবার বিকেলে বাংলাদেশে সংগঠনটির সক্রিয় ৪৪ হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবক প্রত্যেকে নিজেদের আঙিনায় সাতটি করে গাছের চারা লাগান।

আজ সন্ধ্যায় বিডি ক্লিনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গাছ লাগিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপনের তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিডি ক্লিনের স্লোগান ‘জন্মদিন বা প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন কেক কেটে নয়, বরং এমন কিছু করে দেখাও, যা জাতির জন্য কল্যাণকর হয়’।

স্বেচ্ছাসেবীরা ওই স্লোগান সামনে রেখেই নিজ বাড়ির আঙিনা বা নিজের নিয়ন্ত্রণ রয়েছে, এমন জায়গায় সাতটি করে গাছের চারা লাগিয়েছেন। তাঁরা দেশীয় প্রজাতির ফুল, ফল এবং ঔষধি গাছগুলো বেছে নেন।

বিডি ক্লিন সদস্যরা আজ বেলা তিনটা থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে গাছ রোপণ করেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। বলা হয়, পরিকল্পনা অনুযায়ী গাছের চারার আকার নির্ধারণ করা ছিল সর্বনিম্ন আড়াই ফুট। সদস্যরা গাছ রোপণের সময় এবং পরবর্তী ৩০ মিনিটের মধ্যে নিজের লাগানো গাছের ছবি মুঠোফোনে ধারণ করেন। সেই ছবিগুলো পরে সন্ধ্যা ছয়টা থেকে সাতটার মধ্যে নিজ নিজ ফেসবুক টাইমলাইন থেকে #সবাইমিলেলাগাইবৃক্ষ, #১ঘণ্টায়৩লক্ষ শিরোনামে আপলোড করা হয়।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিনিধিরা জানান, গাছ রোপণের জায়গা সদস্যদের নিজেরাই নির্বাচন করেছেন। রোপণ করা গাছের নিয়মিত পরিচর্যাও তাঁদেরই করতে হবে। আর পরিচর্যা করার ছবি তুলে প্রতি মাসের ৩ তারিখ সন্ধ্যার মধ্যে আবার নিজের ফেসবুক থেকে আপলোড করতে হবে।

পরিকল্পনা অনুযায়ী গাছের চারার আকার নির্ধারণ করা ছিল সর্বনিম্ন আড়াই ফুটছবি: সংগৃহীত

বিডি ক্লিনের প্রধান সমন্বয়ক চম্পা আক্তার বলেন, ‘সাধারণত কেক কেটে হইচই বা মজার মধ্য দিয়ে সবাই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন করেন। কিন্তু আমরা তা করছি না। কারণ, আমাদের বিশ্বাস, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জাতির জন্য কল্যাণকর হয় এমন কিছুই করা উচিত। তাই আমরা সবাই মিলে গাছের চারা রোপণ করেছি। ভবিষ্যতে এই গাছগুলোই বাংলাদেশের অক্সিজেন ফ্যাক্টরি এবং বৈশ্বিক উষ্ণতা কমাতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

২০১৬ সালের ৩ জুন ‘পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের স্বপ্ন’ জয়ের লক্ষ্যে যাত্রা শুরু করেছিল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডি ক্লিন। সংগঠনটি যত্রতত্র ময়লা ফেলার অভ্যাসের মানসিকতা পরিহার করে পরিচ্ছন্ন, জীবাণুমুক্ত ও সবুজ বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।