• ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ২৩৫ মিলিয়ন ডলার দেবে অস্ট্রেলিয়া: রাষ্ট্রদূত

ডেস্ক
প্রকাশিত ডিসেম্বর ২৪, ২০২৩, ১৬:১০ অপরাহ্ণ
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ২৩৫ মিলিয়ন ডলার দেবে অস্ট্রেলিয়া: রাষ্ট্রদূত
সংবাদটি শেয়ার করুন....

ঢাকা: মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বিতাড়িত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মাতৃভূমিতে মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবর্তনের জন্য বাংলাদেশকে প্রায় ২৩৫ মিলিয়ন ডলার দেবে অস্ট্রেলিয়া।

রোববার (ডিসেম্বর ২৪) গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাতের সময় এ কথা জানান ঢাকায় নিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশনার জেরেমি বুয়ার।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের তাদের মাতৃভূমি মিয়ানমারে মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবর্তনের জন্য বাংলাদেশের প্রতি তার দেশের সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেন এবং বলেছেন তার দেশ রোহিঙ্গাদের জন্য প্রায় ২৩৫ মিলিয়ন ডলার দেবে।

বাংলাদেশে আসন্ন নির্বাচন নিয়ে আলাপের সময় অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশনার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে শুভকামনা জানান। বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

কোভিড-১৯ মহামারী সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করেন এবং দুই দেশের মধ্যে জনগণের সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন। দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্কে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে জেরেমি বুয়ার জ্বালানি এবং জলবায়ু পরিবর্তন পারস্পরিক সহযোগিতার বাড়ানোর ওপর জোর দেন।

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি কমিউনিটি ভালো করছে বলেও উল্লেখ করে তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে ২০০৮ সাল থেকে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকলেও দীর্ঘদিন সামরিক শাসনের অধীনে ছিল।

জলবায়ু ইস্যুতে আলাপকালে শেখ হাসিনা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ নিজস্ব উদ্যোগ নিয়েছে। সরকার দেশে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি জোরদার করেছে।

ক্রিকেট নিয়ে আলোচনাকালে কালে অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) চাইলে অস্ট্রেলিয়া অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও প্রশিক্ষণ সুবিধায় বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ মো. জিয়াউদিন এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।